ভয়াল মৃত্যুকূপের নাম ঢাকনা বিহীন ম্যানহল

  • 11 Oct
  • 03:30 PM

মোঃ জাকির হোসেন,শিক্ষার্থী, ভূমি ব্যবস্থাপনা ও আইন বিভাগ,জবি 11 Oct, 21

ঢাকায় বসবাসকারী মানুষের আতংকের অপর নাম রাস্তার বিভিন্ন জায়গায় থাকা ঢাকনা বিহীন ম্যানহলগুলো। কখনো এটা গেছে রাস্তার মধ্যে, কখনো বা গেছে রাস্তার দুপাশ দিয়ে। পায়ে হাঁটা ছাত্র-ছাত্রী, পথচারী,পরিচ্ছন্নতাকর্মী, রিক্সা চালক ও তার প্যাসেঞ্জার কেউই এই মরণফাঁদ আওতার বাইরে নয়। রাস্তার বিভিন্ন পাশ দিয়ে যাওয়া অপরিকল্পিত এই ম্যানহলগুলো সামান্য বৃষ্টির পানিতে ভরে ওঠে। এসময় কারও পক্ষেই ম্যানহলের অবস্থান বোঝা সম্ভব হয়ে ওঠে না। ফলে কখনও দেখা যায় রিক্সা চালক তার প্যাসেঞ্জার নিয়ে পরিবহনের সময় রিক্সার এক চাকা ম্যানহলের উন্মুক্ত এই ঢাকনা মুখে পড়ে দুর্ঘটনা ও বিভিন্ন বিব্রতকর পরিস্থিতির সম্মুখীন হচ্ছে।

মনকে কঠিনভাবে নাড়া দিয়ে ওঠে তখনই, যখন মায়ের কোলে থাকা শিশু নিয়ে মা রিক্সা থেকে ছিটকে পড়ার দৃষ্টান্ত চোখে পড়ে। তবে এই অবর্ননীয় দুর্ঘটনা এখন আর রিক্সা চেপে যাওয়া যাত্রীদের মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই, এর প্রসার বেড়ে তা ভয়ংকর রূপ ধারণ করেছে। বর্তমানে দেখা যাচ্ছে বাস সহ অন্যান্য পরিবহন থেকে যাত্রী নামছে হাসি মুখে বুকবাঁধা সপ্ন নিয়ে বাড়ি ফেরার আশায়। পরিবহন থেকে নেমে কেউ দুই পা, কেউ একপা করে এগুতেই রাস্তায় জমে থাকা বৃষ্টির পানি প্রবল বেগ টেনে নিচ্ছে তাজা প্রাণ, ঢাকনা না থাকা বিপদজনক এই ম্যানহল নামক মৃত্যু কূপের অতল গহ্বরে। মুহুর্তেই হারিয়ে যাচ্ছে এসব মানুষ যার হদিস মেলা দুরূহ। কেউ বা অসাবধানে চলতে গিয়ে আঘাতপাচ্ছে, কারোর হাত পা ভাঙাসহ গুরুতর হতাহতের দৃষ্টিন্ত বিরল নয়। কিন্তু একটি দুর্ঘটনা সারা জীবনের কান্না হতে পারে।

রাস্তায় চলার সময় আমাদের অবশ্যই সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে এছাড়া সিটি কর্পোরেশনকে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে হবে। অনাকাঙ্ক্ষিত এসব দুর্ঘটনা এড়াতে বৃষ্টির সময় ঢাকনা বিহীন ম্যানহলগুলোর মধ্যে লাল কাপড় বাঁশের মাথায় বেধে সর্তকতা জারি করা যেতে পারে। তাছাড়া বস্তা ভর্তি বালি উন্মুক্ত ম্যানহলের সামনে স্তর আকারে রেখে, সাদা কালো ব্যানারে লিখে, সাইনবোর্ডেও বিভিন্ন লেখনির মাধ্যমে পথচারীদের সতর্কতা জারি করা যেতে পারে। অপ্রত্যাশার এই মরণফাঁদ থেকে
বাঁচতে সতর্কতা অবলম্বনই হতে পারে জীবন রক্ষার অন্যতম নিয়ামক।