‘দিনটি যখন ফার্মাসিস্টদের’

  • 25 Sept
  • 02:54 PM

সুমাইয়া সুলতানা 25 Sept, 21

'ফার্মেসি' শব্দটি শুনলেই বাংলাদেশের মানুষের মনে যে ভাবনাটি প্রথমে আসে তা হলো ' ঔষধের দোকান ', যেটি দুঃখজনক হলেও সত্য। কিন্তু বাস্তবিকভাবে আন্তর্জাতিক প্রেক্ষাপটে ফার্মেসি এবং ফার্মাসিস্টদের অবস্থান যে কতটা উপরে তা আমরা জানতে পারি 'World Pharmacist Day ' দেখে। International Pharmaceutical Federation Council ২০০৯ সালে তুর্কির ইস্তাম্বুলে ২৫ সেপ্টেম্বরকে ' World Pharmacist Day' ঘোষনা করে কারন একই দিন ১৯১২ সালে এ কাউন্সিলটি প্রতিষ্ঠিত হয়।

এ বছর ১১ তম ফার্মাসিস্ট দিবস পালন করা হচ্ছে এবং এবারের প্রতিপাদ্য , " Pharmacy: Always trusted for your health" । আধুনিক বিজ্ঞানের এ যুগে, ফার্মেসি (- ঔষধ বিজ্ঞান, রসায়ন ও চিকিৎসাবিজ্ঞানকে একত্র করে উপস্থাপন করছে) খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি স্থান দখল করে নিয়েছে।একজন দক্ষ ফার্মাসিস্ট, যার মধ্যে ঔষধ, তার ক্রিয়া প্রতিক্রিয়া, উপকারিতা অপকারিতা, প্রস্তুত প্রনালী ইত্যাদির সঠিক জ্ঞান থাকে, এবং চিকিৎসা বিজ্ঞান এর গুরুত্বপূর্ণ একটি স্তম্ভ। ফার্মাসিস্ট ও ঔষধবিদ্যা ছাড়া চিকিৎসাবিজ্ঞান ও স্বাস্থ্য এককদম সামনে আগানো অসম্ভব। 'World Pharmacist Day' পুরো বিশ্বের মানুষকে জাতি সমাজ ও দেশের সচেতনতা ও স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠায় ফার্মাসিস্ট দের গুরুত্ব ও ভুমিকা স্বরন করিয়ে দেয়।

-
সুমাইয়া সুলতানা
শিক্ষার্থী, ফার্মেসি বিভাগ
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়।